fbpx

ককাটেল পাখির প্রতিদিনের খাবারের তালিকা কেমন হওয়া প্রয়োজন?

পাখি প্রেমিদের কাছে অত্যন্ত পছন্দের একটি সৌখিন পাখি ককাটেল। আদুরে ককাটেল এর সৌন্দর্যের জন্য এরা বিখ্যাত। ককাটেল সৌখিন পাখি পালকদের দীর্ঘদিনের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে এদের এখন এদের অনেক মিউটেশনের সৃষ্টি হয়েছে। এদের মধ্যে লুটিনো, ফন, গ্রে, রুবিনো, হোয়াইট ফেস, সিলভার প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। মজার ব্যাপার হচ্ছে ককাটেলের মেল এবং ফিমেল পাখি দেখতে হুবহু একই রকম। আপনি যদি অভিজ্ঞ ব্রিডার না হন তবে, এদের শনাক্ত করতে বেশ ঝামেলাই পোহাতে হবে আপনাকে। শুধু পাখি চেনা ই নয় এদের খাবার দাবার, পালন পদ্ধতি কিংবা ব্রিডিং কৌশল জানার জন্য অভিজ্ঞ ককাটেল পালকদের পরামর্শ নেয়া উচিত। নবীন ব্রিডারদের যাতে ককাটেল পালন সহজ হয় তাই এদের প্রতিদিনের খাবারের একটি তালিকা দেয়া হল;
১| সীড মিক্স
২| যেকোনো ১ টি শাক / পাতা : পালং / কলমি /পুদিনা পাতা / সজনে পাতা / নিম পাতা / লাল শাক / ধনে পাতা ইত্যাদি
৩| যেকোনো ১ টি সবজি : এসপারাগাস/ ব্রকোলি/ বরবটি/বাধা কপি/ মিষ্টি কুমড়া/ ঝিঙ্গা / চিচিঙ্গা/শসা/সজনে ডাটা /মটরশুটি/সীম/ সীম এর বিচি/ কাচা পেপে/ পটল/ ঢেঁড়শ
৪| যেকোনো ১ টি ফল : আপেল / স্ট্রবেরি/ ফুটি / তরমুজ/ পেপে/ নাশপাতি/ পেয়ারা /কামরাঙ্গা/ আমড়া
৫| কাটল ফিশবোন্ (সাগরের ফেনা)
৬| ফুটানো এবং ফিল্টার করা টাটকা পানি : সকালে ১ বার & সন্ধায় ১ বার বদলে দিবেন
৭| সজনে পাতা লিফ – সাপ্তাহিক 2 দিন (এতে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম , প্রোটিন, সবরকমের ভিটামিন ও মিনারেল আছে)
৮| অঙ্কুরিত বীজ – সাপ্তাহিক ২ দিন
৯| সেদ্ধ বুটের ডাল – সাপ্তাহিক ২ দিন
১0| শুকনো কুমড়ো বীজ – সাপ্তাহিক ২ দিন
১১| ঘৃতকুমারী টুকরা – সাপ্তাহিক ২ দিন
১২| সপ্তাহে ১ বার অথবা চিকিত্সার প্রয়োজন অনুযায়ী – তুলসী দ্রবণ (ঠান্ডায়), aloe vera /ঘৃতকুমারী দ্রবণ (গরমে, হজম & পালকের সমস্যায়)| সকাল থেকে ৬ ঘন্টা রেখে এরপর বদলে দিয়ে সাধারণ পানি দিবেন|
*শাক সবজি ফল দেয়ার আগে সবসময় বড় একবাটি পানিতে ভালমত ডলে ধুবেন ৩ বার|
*ফল দেয়ার আগে বিচি ফেলে দিবেন|
ককাটিয়েল পাখির সীডমিক্স অনুপাত –
চিনা ৩ কেজি, কাউন ১ কেজি ৫০০ গ্রাম, সূর্যমুখী বীজ ২৫০ গ্রাম, পোলাও চালের ধান ১ কেজি ৫০০ গ্রাম, ক্যানারি ১ কেজি, গুজি তিল ২৫০ গ্রাম
সীডমিক্স অবশ্যই ভালো করে ধুয়ে টানা ৩ দিন কড়া রোদে ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে।
.
#শাকসবজি
এসপারাগাস (বাংলায় শতমূলী), ব্রকোলি, গাজর, বরবটি, সবুজ শাক সবজি (বাধা কপি,পালং শাক,কলমি শাক,লেটুস পাতা প্রভৃতি), মটর, মরিচ(যেকোনো রঙ সবুজ কিংবা লাল), মিষ্টি কুমড়াঝিঙ্গা / চিচিঙ্গা, শসা
.
#ফল
আপেল, কলা, জাম জাতীয় রসালো ফল(ব্ল্যাক বেরি/ কালো জাম , ব্লুবেরি,ক্রানবেরি,রাজবেরি,স্ট্রবেরি), ফুটি / খরমুজ, চেরি ফল, আঙ্গুর, লেবু, আম, তরমুজ, কমলা, পেপে, পিচ, নাশপাতি, পেয়ারা

This entry was posted in Bird and tagged .

4 thoughts on “ককাটেল পাখির প্রতিদিনের খাবারের তালিকা কেমন হওয়া প্রয়োজন?

  1. Basar says:

    এখানে পাখিকে খাওয়ানোর জন্য যে সিডমিক্স টি তৈরি করব তার পরিমান অর্থাৎ কোন সিড কতটুকুন দিয়ে মেশাবো বিস্তারিত লিখলে ভালো হতো।

    • admin says:

      সিডমিক্স এর সিড এর পরিমানের কমবেশির কারণে রেশিও চেঞ্জ হয়ে যায়। আর অনেকেই রেশিও টা নিজেদের কাছে সিক্রেট রাখে। তাই এখানে দেয়া হয়নি। ইনশা আল্লাহ সামনে দেয়ার চেষ্টা করব। ধন্যবাদ।

    • admin says:

      আলো বাতাস যুক্ত স্থানে পাখিকে রাখুন। অতিরিক্ত গরমে পাখি হিট স্ট্রক করতে পারে, তাই পাখিকে স্প্রে এর মাধ্যমে গোসল করিয়ে দিন, এবং ঠান্ডা জায়গায় পাখিকে রাখুন।

Leave a Reply to Basar Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *